ইউজার ইন্টারফেস বা ইউ আই
ইউজার ইন্টারফেস বা ইউ আই

ইউজার ইন্টারফেস টি কি ? এটি কিভাবে কাজ করে ?

ইউজার ইন্টারফেস – একটা ফোনের অনেক ইম্পরট্যান্ট একটা পার্ট,  এবং এই UI হচ্ছে আমাদেরকে একটা ফোন ইউজের যে এক্সপেরিয়েন্স টা সেটাকে ভালো করতে পারে আবার মন্দও করতে পারে।

নানা ধরনের UI আছে,  ইউ আই জিনিসটা কি?আসুন জানার চেষ্টা করি ।আমরা ফোনটা আনলক করার পরে প্রথমেই যেইটা দেখতে পাই এইটা,ফোনের মধ্যে যে আইকন গুলো আছে, ফোনের যে কালার্স স্কিন টা আছে, থিম আছে, এখানে যে মেনু সিস্টেম আছে, এনিমেশন যেটা আছে, নেভিগেশন প্যাটার্ন যেটা আছে এই সবকিছু মিলেই ইউ আই বা ইউজার এক্সপেরিয়েন্স।

ইউ আই বা ইউজার ইন্টারফেস যেটা এটা এক এক ফোনের এক এক রকম কেন হয়?

একটা জিনিস খেয়াল করলেই দেখবেন যে, আইফোনের একটাই ইউ আই হয়।আপনি যদি আইফোন এক্স ইউজ করেন। আইফোন ইলেভেন টুয়েলভ বা টুয়েলভ প্রো বা টুয়েলভ প্রো  ম্যাক্স টুয়েলভ মিনি যেটাতেই যান না কেন একটাই ইউ আই। এইটাও আইফোন ঐটাও আইফোন কিছু কিছু মানুষ এটাকে খুব পছন্দ করে। বাট অ্যান্ড্রয়েড ওয়ার্ল্ডে এইটা আবার ভার্সেটাইল। এক একটা ব্রান্ডের ফোনে এক এক রকমের ইউ আই।

স্যামসাং এর ফোনে একরকমের ইউ আই। ওয়ান প্লাস এর ফোনে একরকমের ইউ আই, আবার আপনি যদি শাওমির ফোন ইউজ করেন সেটাতে একরকমের, ওপ্পোর ফোনে এক রকমের।

এত ইউজার ইন্টারফেস এর দরকার টা কি ছিল ?

গুগোল একটা স্টক এন্ড্রয়েড ইউ আই বের করেছে, স্টক টাই সবাই ইউজ করতে পারে। কিংবা স্টকের বাইরে যদি কোন কম্পানি খুব ভালো মানের একটা ইউ আই ডেভলপ  করে। তাহলে সব কোম্পানিই সেই ইউ আই টাই ইউজ করতে পারে।

ইউজার ইন্টারফেস বা ইউ আই
ইউজার ইন্টারফেস বা ইউ আই

এক ফোনের এক ইউজার ইন্টারফেস এর কি দরকার ছিল। এই প্রশ্নের উত্তরটা জানা যাক!

একটা জিনিস খেয়াল করবেন যখনি কোন একটা নতুন প্রসেসর তৈরি হয় মূলত ফোনগুলো কিন্তু তৈরি হয় হচ্ছে এস এস এর উপর বেস  করে । কোয়ালকোম নতুন এসওসি লঞ্চ করলো এইবার এই এসও সি দিয়ে সবগুলো ফোনের ব্র্যান্ড  ফোন লঞ্চ করে।

  • ফোনের মডেল সিলেক্ট করে।
  • তারপরে কোম্পানিগুলো কিন্তু এসওসি বানায় না।
  • এসওসির ওপর বেস করে কোম্পানিগুলো ফোন বানায়। তখন কি হয় অলমোস্ট সবগুলো ফোন ই  ঐ
  • সময়ের মধ্যে একই রকম হয়।

আপনি যদি ফ্ল্যাগশিপ এর কথা চিন্তা করেন।টুয়েন্টি টুয়েন্টি ওয়ানে যে ফ্ল্যাগশিপ গুলো লঞ্চ হবে সবগুলোই অলমোস্ট সেম এসওতি  তে লঞ্চ হবে । র‍্যাম কাছাকাছি হবে।ক্যামেরা স্পেক অলমোস্ট কাছাকাছি হবে। এবং ইদানিং ডিজাইনেউ প্রচুর পরিমাণে সিমিলারিটিস্ট থাকে।তাই ফোন গুলো আসলে একটার থেকে আরেকটার ডিফারেন্স হয় না।

আপনি যদি নির্দিষ্ট একটা প্রাইস সেগমেন্ট এর মধ্যে সবগুলো ফোনের যে ব্রান্ড আছে সবার যদি একটা একটা করে মডেল সিলেক্ট করেন তাহলে দেখবেন মোটামুটি কাছাকাছি।সো ফোন গুলো নিজেদেরকে অন্য ব্রান্ড থেকে আলাদা করার জন্যেই ইউ আই বা ইন্টারফেস টা ব্যবহার করে থাকে বা মোডিফাই করে ডিফরেন্ট করে থাকে।

গুগল থেকে যে স্টক ইউআই  আনে, এটাকে এনে তাদের নিজেদের মতো করে মোডিফাই করে নিজেদের মতো করেই ডিজাইন করে কিছু ফিচার এড করে কিছু ফিচার রিমুভ করে নতুন আইকন নতুন কালার্স নতুন এনিমেশন নতুন নতুন কিছু অপশন, এগুলো এড করে তারা হচ্ছে নিজেদের মতো করে কাস্টম ইউ আই বানায়।যেগুলোর এক একটা নাম দেয়।

ওয়ান ইউ আই অক্সিজেন ওয়েস, তারপর হচ্ছে রেলমি ওয়াই এম আই ইউ আই এই টাইপ এর ও নানান রকমের ইউ আই।

তাহলে কোন ইউ আই টা বেস্ট?

এইটা নিয়ে অনেক কাদা ছোড়াছুড়ি হয় এবং কেউ বলে অক্সিজেন ওয়েস্ট বেস্ট, কেউ বলে, কেউ বলে ওয়ান ইউ আই বেস্ট। কেউ বলে গুগল এ স্টক এন রাইড হচ্ছে বা স্টক ইউজার ইন্টারফেস হচ্ছে বেস্ট। বাট আমাদের কাছে স্টক ইউ আই টা  ভালো লাগে না। এর একটা রিজন হচ্ছে স্টক ইউ আই তে অনেক ইম্পরটেন্ট ফিচার নেই।সেইটাতে ঐ ফিচারগুলোকে এনাবল করতে হলে আমার থার্ডপার্টি আ্যপ ইন্সটল করতে হয়।

আমরা যদি ইনজেনারেল চিন্তা করি তাহলে কোন ইউ আই টা বেস্ট।এখানে অনেকগুলো ক্রাইটেরিয়া আছে যেগুলোর উপর বেজ করে ইউ আই কে রেংক করা যাবে। ফর এক্সাম্পল কোন ইউ আই টা ক্লিন এবং মিনিমাল কেউ কেউ এটা পছন্দ করে। কেউ কেউ পছন্দ করে কোন ইউ আই তে সবচেয়ে বেশি ফিচার আছে ঐ টাই বেস্ট।

ফিচার এবং মিনিমালিজাম

কেউ কেউ প্রেফার করে যে ফিচার এবং মিনিমালিজাম এই দুইটার মাঝে একটা সামঞ্জস্য পূর্ণ কোন একটা থাকবে ব্যালেন্স থাটবে। কেউ পছন্দ করে যেইটা তে সিকিউরিটি আপডেট ঘন ঘন আসে ।যেইটাতে সফ্টওয়্যার সাপোর্ট বেশি ভালো। সেই টা বেস্ট ইউ আই।কারো কারো মতে হচ্ছে ইউজার যে একসেস এবিলিটি আছে ।যেমন এক হাতে ইউজ করা কিংবা অ্যারেঞ্জ মেনজ সুন্দর থাকবে লুক সুন্দর থাকবে থিম গুলো ভালো থাকবে ওয়াল পেপার ভালো থাকবে।

এই জিনিস গুলোর উপরে অনেকেই আবার ডিপেন্ড করে ।আবার অনেকেই বলে যে স্ট্যাবল ইউ আই যেইটা।যেইটা ল্যাক করবে না হিকাপ হবে না ঐ টা হচ্ছে বেস্ট। সো এই রকম নানা রকমের ক্রাইটিএরের উপর বেজ করে এক এক জন এক এক টাকে ভালো বলে।

কেউ বলে স্টক এন্ড্রয়েড এরপরে হচ্ছে ওয়ান ইউ আই অক্সিজেন ওএস আবার কেউ কেউ অক্সিজেন ওএস ওয়ান ইউ আই থেকে বেটার বলে কেউ কেউ আবার স্টক অ্যান্ড্রয়েড কেউ নিচে নামায় ফেলে।এটা নিয়েও অনেক ডিভাইড আছে কেউ একটা জায়গায় পৌঁছাতে পারবে না।কোন ইউ আই টা বেস্ট এইটা জাজ করব তো আমরা একটা ওয়ে বললাম বিভিন্ন ক্রাইটেরিয়ার ওপর বেজ করে উইথ ইউ আর উইথ ইউ আর দা বেস্ট আমরা ডিফাইন করতে পারি।

ইউ আই এর দরকার

যদি ইউজার ইন্টারফেস এর ওপর একটা এনালাইসিস করি তাহলে দেখা যাবে যে যেই ইউ আই ইউজ করে অভ্যস্ত তার কাছে সেই ইউ আই টা বেস্ট মনে হয়। ফর এক্সাম্পল আমার কাছে ই এম ইউ আই টাই বেস্ট মনে হয় । কারন আমি ইউ এম আই তে অভ্যস্ত ।যে স্যামসাং ইউজ করছে দীর্ঘদিন  তো সে স্যামসাং ই ইউজ করবে কারণ তার কাছে স্যামসাংয়ের ইন্টারফেস ভালো লাগে এবং সে এটাতে অভ্যস্ত এটার অলিগলি সে চেনে কেউ আছে শাওমির ফোন ইউজ করে সে অন্য টাতে  সুইচ করবে না।

সো এইভাবে আপনি যখনই কোন একটা ফিচার এ কোন একটা ইউ আই তে অভ্যস্ত হয়ে যান।

তখন সেই ইউ আই টাই বেস্ট মনে হয়। শুধু ফোনের ইউ আই এর উপর বেজ করেই ফোনের ব্র্যান্ড ইউজ করা টা আমার মনে হয় না খুব একটা লজিক্যাল কেউ বলল যে ভাই অক্সিজেন ওয়েজ দা বেস্ট আপনি ওয়ান প্লাস এর ফোন ই নেন । স্যামসাংয়ের ফোন নিয়েন না ব্যাপারটা এমন না ।

আপনার যদি স্যামসাংয়ের ফোন ভালো লাগে তাহলে আপনি স্যামসাংয়ের ফোন ই  নেন কয়েকদিন ইউজ করবেন অভ্যস্ত হয়ে যাবেন এরপরে দেখবেন যে অক্সিজেন ওএস টাই বেস্ট আপনি আর বলবেন না, আপনার কাছে ওয়ান ইউ আই টাই বেস্ট হবে । এইটাই ছিল এই ভিডিওর মূল মেসেজ সেইটা হচ্ছে ইউ আই টা প্রত্যেকটা মানুষের জন্য আলাদা আলাদা হয় এটা একটা পার্সোনালাইজ এক্সপেরিয়েন্স একটা ইউজার এক্সপেরিয়েন্স যা এখানে আসলে সবার কাছে সব কিছু ভাল লাগবে না যার যেটা ইউজ করে অভ্যস্ত তার কাছে সেটাই ভালো লাগবে।

www.Taja1.com